মদীনার মর্যাদা সম্পর্কে কয়েকটা হাদীস












মদীনার ব্যাপারে আগ্রহ নেই এরকম মুসলিম খুঁজে পাওয়াব দুস্কর। সারা পৃথিবীর মুসলিম যখন হজ্জ্ব ব্রত পালনের উদ্দেশ্যে মক্কা শরীফে যায়, অবশ্যই মদীনা শরীফ যিয়ারতে না করে আসেনা। অনেক মুসলিম ভাইবোন, যারা হজ্জ্ব করেছেন; তাদেরকে জিজ্ঞেস করা একটি ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয়। “আপনার কাছে কোনটা বেশী ভাল লেগেছে? মক্কা না মদীনা”? অধিকাংশেরই উত্তর ছিল, “মদীনা”! মক্কা ত্যাগের সময় তেমন খারাপ লাগেনি অথচ মদীনা ছেড়ে আসার সময় চোখের পানিতে বুক ভাসিয়েছেন এমন মুসল্লির সংখ্যাই আসলে বেশী।

কিন্ত এরকম হবার কারণ কী? কেন মানুষের অন্তরের এরকম টান দেখা যায় মদীনার প্রতি? 

কারণ আর কিছুই নয়। মদীনার মর্যাদাই এর কারণ। আমাদের প্রিয় নবী (সাঃ) মদীনাকে অত্যন্ত ভালবাসতেন। তিনি এ শহরের জন্য প্রাণ ভরে আল্লাহর কাছে দোয়া করেছেন। আসুন, মদীনার মর্যাদা সমর্কে কিছু দুর্লভ হাদীস জেনে নেই।

আবূ বকর ইবনু আবূ শায়বা ইবনু নূমায়র (রহঃ) … আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেনঃ সাপ যেমন সঙ্কুচিত হয়ে আপন গর্তে আশ্রয় নেয়, তদ্রুপ ইসলামও (সঙ্কুচিত হয়ে) মদিনায় আশ্রয় নেবে (সহীহ মুসলিম)

মুহাম্মদ ইবনু রাফি (রহঃ) … আবদুল্লাহ ইবন উমর (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কে বলতে শুনেছিঃ যে ব্যক্তি এখানকার দুঃখকষ্ট ও বিপদ আপদে ধৈর্যধারণ করে আমি কিয়ামতের দিন তার পক্ষে সাক্ষী হব অথবা তার শাফাআতকারী হব। ‘এখানকার’ বলতে মদিনাকে বুঝানো হয়েছে।   (সহীহ মুসলিম)

ইয়াহইয়া ইবনু ইয়াহইয়া (রহঃ) … আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ মদিনার প্রবেশ পথে ফিরিশতাগণ প্রহরারত। সেখানে প্লেগ ও দাজ্জাল প্রবেশ করতে পারবে না।   (সহীহ মুসলিম)

কুতায়বা ইবনু সাঈদ (রহঃ) আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ (মদিনার) লোকদের উপর এমন এক সময় আসবে যখন কোন ব্যক্তি তার চাচাত ভাইকে এবং নিকটাত্নীয়কে ডেকে বলবে আস কোন উর্বর এলাকায় গিয়ে বসতি স্থাপন করি, আস কোন শস্য-শ্যামল এলাকায় গিয়ে বাস করি। কিন্তু মদিনাই তাদের জন্য উত্তম যদি তারা জানত! সেই সত্তার শপথ যার হাতে আমার প্রাণ! যদি কোন ব্যক্তি মদিনার উপর রিবক্ত হয়ে চলে যায় তবে আল্লাহ তায়ালা তার চাইতে উত্তম ব্যক্তি তার স্থলবর্তী করবেন। সাবধান! মদিনা হচ্ছে হাপর তুল্য, যা নিজের মধ্য থেকে নিকৃষ্ট জিনিস (ময়লা) বের করে দেয়। কিয়ামত সংঘটিত হবে না, যতক্ষন মদিনা তার বুক থেকে নিকৃষ্ট লোকদের বের করে না দেবে যেমন হাপর লোহার ময়লা দূর করে দেয়।   (সহীহ মুসলিম)

মুহাম্মাদ ইবনু হাতিম, ইবরাহীম ইবনু দীনার ও মুহাম্মাদ রাফি (রহঃ) … আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আবূল কাসিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ যে ব্যক্তি এই শহরের অর্থাৎ মদিনার অধিবাসীদের ক্ষতি করতে চাইবে আল্লাহ তাকে এমনভাবে গলিয়ে দিবেন যেমন লবণ পানিতে গলে যায়।   (সহীহ মুসলিম)

আবূ বকর ইবনু আবূ শায়বা (রহঃ) … সুফিয়ান ইবনু আবূ যুহায়র (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, শাম (সিরিয়া) বিজিত হবে। ফলে একদল লোক সপরিবারে মদিনা থেকে চলে যাবে উট হাকাতে হাঁকাতে, অথচ মদিনাই তাদের জন্য কল্যাণকর ছিল যদি তারা বুঝতে পারত। এরপর ইয়ামান বিজিত হবে। ফলে একদল লোক উট হাঁকিয়ে সপরিবারের চলে যাবে (মদিনা থেকে)। অথচ মদিনাই ছিল তাদের জন্য কল্যাণকর যদি তারা বুঝতে পারত। এরপর ইরাক বিজিত হবে। ফলে একদল লোক উট হাঁকিয়ে সপরিবারে মদিনা থেকে বের হয়ে যাবে। অথচ মদিনাই ছিল তাদের জন্য কল্যাণকর, যদি তারা বুঝতে পারত।    (সহীহ মুসলিম)

এছাড়াও আরো অনেক হাদীস রয়েছে যার মাধ্যমে মদীনা এবং মদীনার আলেমদের মর্যাদা সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায়। এখানে শুধুমাত্র কয়েকটা হাদীস উল্লেখ করা হল।  


Leave a Reply