ভালো মৃত্যু চান, তাহলে নেক ভাবে জীবনযাপন করুন।



হে মানবসকল, মহামহিম আল্লাহকে ভয় কর এবং তাঁর সাথে সাক্ষাতের পূর্বে সৎকাজের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ কর। কোরআন পাকে এরশাদ হয়েছেঃ
(يَا أَيُّهَا الْأِنْسَانُ إِنَّكَ كَادِحٌ إِلَى رَبِّكَ كَدْحاً فَمُلاقِيهِ) (الانشقاق:6)
হে মানুষ, তোমাকে তোমরা পালনকর্তা পর্যন্ত পৌছতে কষ্ট স্বীকার করতে হবে, অতঃপর তার সাক্ষাৎ ঘটবে।(৮৪/৬)
হে মানবসকল, নিশ্চয়ই কেউ জানেনা কোথায় সে মৃত্যুবরণ করবে। এবং সে জানেনা কখন সে মৃত্যবরণ করবে। আল্লাহপাক কোরআনে এরশাদ করেছেনঃ
نَّ اللَّهَ عِندَهُ عِلْمُ السَّاعَةِ وَيُنَزِّلُ الْغَيْثَ وَيَعْلَمُ مَا فِي الْأَرْحَامِ وَمَا تَدْرِي نَفْسٌ مَّاذَا تَكْسِبُ غَدًا وَمَا تَدْرِي نَفْسٌ بِأَيِّ أَرْضٍ تَمُوتُ إِنَّ اللَّهَ عَلِيمٌ خَبِيرٌ

নিশ্চয় আল্লাহর কাছেই কেয়ামতের জ্ঞান রয়েছে। তিনিই বৃষ্টি বর্ষণ করেন এবং গর্ভাশয়ে যা থাকে, তিনি তা জানেন। কেউ জানে না আগামীকল্য সে কি উপার্জন করবে এবং কেউ জানে না কোন দেশে সে মৃত্যুবরণ করবে। আল্লাহ সর্বজ্ঞ, সর্ববিষয়ে সম্যক জ্ঞাত।(৩১/৩৪)
কোন একটি কাজ করার নিয়্যত করে আমরা যখন সেটার ব্যাপারে পরের দিন কি হতে যাচ্ছে নিশ্চিত করে বলতে পারিনা অথচ সেটী আমাদের হাতের কাজ ও পরিকল্পনার সাথে সম্পর্কিত, সেখানে যেটা সম্পুর্ণ আল্লাহর একক এখতিয়ারে আছে সেটি আমরা কিভাবে জানতে পারি। আমার কেউই জানিনা কোথায়, কখন আমরা মৃত্যুবরণ করব। আল্লাহ আমাদের সবাইকে ঈমানের সাথে মৃত্যু দান করুন। আমীন।
একজন ব্যাক্তির পক্ষে এটা কোনভাবেই জানার দরকার নেই যে, কখন বা কোথায় সে মারা যাবে। কারণ মক্কা বা মদীনায় অথবা অন্য কোন পবিত্র স্থানে মৃত্যবরণ করাটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। শুক্রবার বা সোমাবারে মারা যাওয়াটাও গুরুত্বপুর্ণ নয়। গুরুত্বপূর্ণ হল মানুষের মৃত্যপুর্ব ঈমানী হালত। একজন মানুষ কোন অবস্থায় মারা গেল, সে কি তাওহীদের উপর মারা গেল নাকি শির্ক, কুফর নাশোকরীর উপর ঈমান হারা হয়ে মারা গেল? আল্লাহপাক আমাদের ঈমানের উপর মৃত্যু দান করুন ও শির্ক কুফর থেকে হেফাযত করুন। ও মুসলিম! কেউ যদি ঈমানের উপর মৃত্যুবরণ করতে চায় তাহলে সে যেন বেশী বেশী সৎ কাজ সম্পাদন করে। নিশ্চয় আল্লাহপাক সেই বান্দাকে রহম করেন এবং বান্দার দুর্যোগের সময় তার কাছে থাকেন যে বান্দা সুখের সময় আল্লাহকে স্মরণ করে থাকে।
নবীজি (সাঃ) صلى الله عليه وعلى آله وسلمবলেছেনঃ

 تَعَرَّفْ إلَى اللَّهِ فِي الرَّخَاءِ يَعْرِفُك فِي الشِّدَّةِ
সুখের সময় মহান আল্লাহপাককে স্মরণ কর তাহলে তোমার কঠিন সময়গুলোতে আল্লাহ তোমাকে স্মরণ করবেন।  
মানুষের জীবনে তার মৃত্যুর চেয়ে আর কঠিন কি কিছু হতে পারে? মানুষের আত্মা যখন এই পৃথিবী ছেড়ে যেতে থাকে তখন মানুষ সত্যিই কঠিন সময় পার করে থাকে। তাই, কোন বান্দা যদি পৃথিবী থাকাকালীন আল্লাহপাককে ইবাদাত, আনুগত্য ও যিকিরের মাধ্যমে ঠিকমত স্মরণ করে থাকে, তাহলে অবশ্যই মহান আল্লাহপাক মৃত্যুর সেই কঠিন মুহুর্তে তার বান্দাকে সাহায্য করবেন। মহান আল্লাহপাক আমাদের ঈমানের সাথে মৃত্যুর তৌফিক দান করুন।
অনুবাদ-রশিফ ইবনে এস্তেস বার্বি।

Leave a Reply