পবিত্র কুরআন থেকে “রব্বানা” দিয়ে শুরু ২৫টি দোয়া

পবিত্র কুরআন থেকে “রব্বানা” দিয়ে শুরু ২৫টি দোয়া

আল্লাহ সালাতের মাধ্যমে প্রার্থনা করতে বলেছেন (২:৪৩; ২:১৫৩)। আর সালাতের সবচেয়ে আকর্ষণীয় অংশ হলো সিজদা। সিজদাতে একজন মুসলিম/মুসলিমা আল্লাহ তায়ালার সবচেয়ে নিকটবর্তী হয়।
এই সময় আমরা আল্লাহর কাছে করুণভাবে কাকুতি-মিনতি করতে পারি। এছাড়াও বিভিন্ন সময় আল্লাহর কাছে চাওয়ার জন্য পবিত্র কুরআনে বেশ কিছু আয়াতে এই চাওয়ার প্রার্থনাগুলো আল্লাহ আগেই বলে দিয়েছেন।
নিচে ২৫টি প্রার্থনামূলক আয়াতাংশের উদ্ধৃতি দেয়া হল। এখানে মূল আরবীর বাংলা উচ্চারণ ও এর অর্থ দেয়া হয়েছে, সহীহ শুদ্ধভাবে শেখার জন্য সুরা ও আয়াত নাম্বার দেখে সরাসরি আরাবী এবারত পড়বেন। আশা করি আমার এই ক্ষুদ্র প্রয়াস আপনাদের কাজে লাগবে।

রব্বানা – ১

(১) রাব্বানা আতিনা ফিদ্দুনিয়া হাসানাত ওয়াফিল আখিরাতি হাসানাতাউ ওয়াক্বিনা অ্বাজাবান্নার।
رَبَّنا آتِنا فِي الدُّنيا حَسَنَةً وَفِي الآخِرَةِ حَسَنَةً وَقِنا عَذابَ النّارِ
অর্থ: হে পরওয়ারদেগার! আমাদিগকে দুনিয়াতেও কল্যাণ দান কর এবং আখেরাতেও কল্যাণ দান কর এবং আমাদিগকে দোযখের আযাব থেকে রক্ষা কর। (সুরা বাক্বারাহ ২:২০১)

রব্বানা – ২

(২) রাব্বানা আফরিগ অ্বালাইনা সাবরান ওয়া ছাব্বিত আক্বদা মানা ওয়াআনছুরনা অ্বালাল ক্বাউমিল কাফিরীন।
[২:২৫০] আল বাকারা

رَبَّنا أَفرِغ عَلَينا صَبرًا وَثَبِّت أَقدامَنا وَانصُرنا عَلَى القَومِ الكافِرينَ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদের মনে ধৈর্য্য সৃষ্টি করে দাও এবং আমাদেরকে দৃঢ়পদ রাখ-আর আমাদের সাহায্য কর সে কাফের জাতির বিরুদ্ধে। (সুরা বাক্বারাহ ২:২৫০)

রব্বানা – ৩

(৩) রাব্বানা লাতুআখিজনা ইন্নাসিনা আউ আখতা’না
رَبَّنا لا تُؤاخِذنا إِن نَسينا أَو أَخطَأنا
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, যদি আমরা ভুলে যাই কিংবা ভুল করি, তবে আমাদেরকে অপরাধী করো না। (সুরা বাক্বারাহ ২:২৮৬)

রব্বানা – ৪

(৪) রাব্বানা ওয়ালা তাহমিল অ্বালাইনা ইসরান কামা হামালতু অ্বালাল্লাজিনা মিন ক্বাবলিনা

رَبَّنا وَلا تَحمِل عَلَينا إِصرًا كَما حَمَلتَهُ عَلَى الَّذينَ مِن قَبلِنا
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! এবং আমাদের উপর এমন দায়িত্ব অর্পণ করো না, যেমন আমাদের পূর্ববর্তীদের উপর অর্পণ করেছ। (সুরা বাক্বারাহ ২:২৮৬)

রব্বানা – ৫

(৫) রাব্বানা ওয়ালা তুহাম্মিলনা মা লা তা ক্বাতা লানা বিহ, ওয়া’ফু অ্বান্না ওয়াগ্বফির লানা ওয়ারহামনা আনতা মাওলানা ফানছুরনা অ্বালাল ক্বাউমিল কাফিরীন।

رَبَّنا وَلا تُحَمِّلنا ما لا طاقَةَ لَنا بِهِ وَاعفُ عَنّا وَاغفِر لَنا وَارحَمنا أَنتَ مَولانا فَانصُرنا عَلَى القَومِ الكافِرينَ
অর্থ: হে আমাদের প্রভূ! এবং আমাদের দ্বারা ঐ বোঝা বহন করিও না, যা বহন করার শক্তি আমাদের নাই। আমাদের পাপ মোচন কর। আমাদেরকে ক্ষমা কর এবং আমাদের প্রতি দয়া কর। তুমিই আমাদের প্রভু। সুতরাং কাফের সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে আমাদের কে সাহায্যে কর। (সুরা বাক্বারাহ ২:২৮৬)

রব্বানা – ৬

(৬) রাব্বানা লা তুজিগ্ব ক্বুলুবানা বা’দা ইজ হাদাইতানা ওয়া হাবলানা মিল্লা দুংকা রাহমাতান, ইন্নাকা আনতাল ওয়াহ্‌হাব।
[رَبَّنا لا تُزِغ قُلوبَنا بَعدَ إِذ هَدَيتَنا وَهَب لَنا مِن لَدُنكَ رَحمَةً إِنَّكَ أَنتَ الوَهّابُ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! সরল পথ প্রদর্শনের পর তুমি আমাদের অন্তরকে সত্যলংঘনে প্রবৃত্ত করোনা এবং তোমার নিকট থেকে আমাদিগকে অনুগ্রহ দান কর। তুমিই সব কিছুর দাতা। (সুরা আল-ইমরান ৩:৮)

রব্বানা – ৭

(৭) রাব্বানাগ্বফির লানা জুনুবানা ওয়া ইছরা ফানা ফি আমরিনা ওয়া ছাব্বিত আক্বদা মানা ওয়ানছুরনা অ্বালাল ক্বাউমিল কাফিরীন।
رَبَّنَا اغفِر لَنا ذُنوبَنا وَإِسرافَنا في أَمرِنا وَثَبِّت أَقدامَنا وَانصُرنا عَلَى القَومِ الكافِرينَ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! মোচন করে দাও আমাদের পাপ এবং যা কিছু বাড়াবাড়ি হয়ে গেছে আমাদের কাজে। আর আমাদিগকে দৃঢ় রাখ এবং কাফেরদের উপর আমাদিগকে সাহায্য কর। (সুরা আল-ইমরান ৩:১৪৭)

রব্বানা – ৮

(৮) রাব্বানা ইন্নাকা মান তুদখিলিন্নারা ফাক্বাদ আখযাইতাহ; ওয়া মা লিজ্‌জালিমীনা মিন আনছার।
رَبَّنا إِنَّكَ مَن تُدخِلِ النّارَ فَقَد أَخزَيتَهُ وَما لِلظّالِمينَ مِن أَنصارٍ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! নিশ্চয় তুমি যাকে দোযখে নিক্ষেপ করলে তাকে সবসময়ে অপমানিত করলে; আর জালেমদের জন্যে তো সাহায্যকারী নেই। (সুরা আল ইমরান ৩:১৯২)

রব্বানা – ৯

(৯) রাব্বানা ইন্নানা সামিঅ্বনা মুনাদি আই উনা দী লিল ইমানি আন আ মিনু বিরাব্বিকুম ফাআ মান্না
[৩:১৯৩] আল ইমরান
رَبَّنا إِنَّنا سَمِعنا مُنادِيًا يُنادي لِلإيمانِ أَن آمِنوا بِرَبِّكُم فَآمَنّا

অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! আমরা নিশ্চিতরূপে শুনেছি একজন আহবানকারীকে ঈমানের প্রতি আহবান করতে যে, তোমাদের পালনকর্তার প্রতি ঈমান আন; তাই আমরা ঈমান এনেছি। (সুরা আল ইমরান ৩:১৯৩)

রব্বানা – ১০

(১০) রাব্বানা ফাগ্বফির লানা জুনু বানা ওয়া কাফ্‌ফির অ্বান্না সাইয়িআতিনা ওয়া তাওয়াফ্‌ফানা মাঅ্বাল আব্‌রার।
رَبَّنا فَاغفِر لَنا ذُنوبَنا وَكَفِّر عَنّا سَيِّئَاتِنا وَتَوَفَّنا مَعَ الأَبرارِ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! অতঃপর আমাদের সকল গোনাহ মাফ কর এবং আমাদের সকল দোষত্রুটি দুর করে দাও, আর আমাদের মৃত্যু দাও নেক লোকদের সাথে। (সুরা আল ইমরান ৩:১৯৩)

রব্বানা – ১১

(১১) রাব্বানা ওয়া আতিনা মা ওয়া অ্বাত্তা অ্বালা রুসুলিকা ওয়ালা তুখজিনা ইয়াউমাল ক্বিইয়ামাহ, ইন্নাকা লা তুখলিফুল মিঅ্বাদ।
رَبَّنا وَآتِنا ما وَعَدتَنا عَلى رُسُلِكَ وَلا تُخزِنا يَومَ القِيامَةِ إِنَّكَ لا تُخلِفُ الميعادَ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! আমাদেরকে দাও, যা তুমি ওয়াদা করেছ তোমার রসূলগণের মাধ্যমে এবং কিয়ামতের দিন আমাদিগকে তুমি অপমানিত করো না। নিশ্চয় তুমি ওয়াদা খেলাফ করো না। (সুরা আল ইমরান ৩:১৯৪)

রব্বানা – ১২

(১২) রাব্বানা জালামনা আনফুসানা ওয়া ইল্লাম তাগ্বফির লানা ওয়া তারহামনা লানাকুনান্না মিনাল খাছিরীন।
رَبَّنا ظَلَمنا أَنفُسَنا وَإِن لَم تَغفِر لَنا وَتَرحَمنا لَنَكونَنَّ مِنَ الخاسِرينَ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা আমরা নিজেদের প্রতি জুলম করেছি। যদি আপনি আমাদেরকে ক্ষমা না করেন এবং আমাদের প্রতি অনুগ্রহ না করেন, তবে আমরা অবশ্যই অবশ্যই ধ্বংস হয়ে যাব। (সুরা অ্বারাফ ৭:২৩)

রব্বানা – ১৩

(১৩) রাব্বানা লা তাজঅ্বালনা মাঅ্বাল ক্বাউমিজ জালিমিন
رَبَّنا لا تَجعَلنا مَعَ القَومِ الظّالِمينَ
অর্থ: হে আমাদের প্রতিপালক, আমাদেরকে এ জালেমদের সাথী করো না। (সুরা অ্বারাফ ৭:৪৭)

রব্বানা – ১৪

(১৪) রাব্বানাফ তাহ বাইনানা ওয়া বাইনা ক্বাউমিনা বিল হাক্বক্বি ওয়া আনতা খাইরুল ফাতিহীন
رَبَّنَا افتَح بَينَنا وَبَينَ قَومِنا بِالحَقِّ وَأَنتَ خَيرُ الفاتِحينَ
অর্থ: হে আমাদের প্রতিপালক আমাদের ও আমাদের সম্প্রদায়ের মধ্যে ফয়সালা করে ছিল যথার্থ ফয়সালা। আপনিই শ্রেষ্টতম ফসলা ফয়সালাকারী। (সুরা অ্বারাফ ৭:৮৯)

রব্বানা – ১৫

(১৫) রাব্বানা আফরিগ্ব অ্বালাইনা সাবরাউ ওয়া তা ওয়াফ্‌ফানা মুসলিমীন
رَبِّنا لَمّا جاءَتنا رَبَّنا أَفرِغ عَلَينا صَبرًا وَتَوَفَّنا مُسلِمينَ
অর্থ: হে আমাদের পরওয়ারদেগার আমাদের জন্য ধৈর্য্যের দ্বার খুলে দাও এবং আমাদেরকে মুসলমান হিসাবে মৃত্যু দান কর। (সুরা অ্বারাফ ৭:১২৬)

রব্বানা – ১৬

(১৬) রাব্বানা লা তাজঅ্বালনা তিফনাতাল লিল ক্বাউমিজ জালিনীন
رَبَّنا لا تَجعَلنا فِتنَةً لِلقَومِ الظّالِمينَ
وَنَجِّنا بِرَحمَتِكَ مِنَ القَومِ الكافِرينَ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদের উপর এ জালেম কওমের শক্তি পরীক্ষা করিও না। আর আমাদেরকে অনুগ্রহ করে ছাড়িয়ে দাও এই কাফেরদের কবল থেকে। (সুরা ইউনুস ১০:৮৫-৮৬)

রব্বানা – ১৭

(১৭) রাব্বানা ইন্নাকা তাঅ্বলামু মা নুখফি ওয়া মা নুঅ্বলিনু; অ মা ইয়াখফা অ্বালাল্লাহি মিন শাইয়িন ফির আরদি ওয়া লা ফিসসামায়ি
رَبَّنا إِنَّكَ تَعلَمُ ما نُخفي وَما نُعلِنُ وَما يَخفى عَلَى اللَّهِ مِن شَيءٍ فِي الأَرضِ وَلا فِي السَّماءِ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আপনি তো জানেন আমরা যা কিছু গোপনে করি এবং যা কিছু প্রকাশ্য করি। আল্লাহর কাছে পৃথিবীতে ও আকাশে কোন কিছুই গোপন নয়। (সুরা ইব্রাহীম ১৪:৩৮)

রব্বানা – ১৮

(১৮) রাব্বানা আতিনা মিল্লাদুনকা রাহমাতাউ ওয়া হাইয়ি লানা মিন আমরিনা রাশাদ
رَبَّنا آتِنا مِن لَدُنكَ رَحمَةً وَهَيِّئ لَنا مِن أَمرِنا رَشَدًا
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদেরকে নিজের কাছ থেকে রহমত দান করুন এবং আমাদের জন্যে আমাদের কাজ সঠিকভাবে পূর্ণ করুন। (সুরা আল-কাহফি ১৮:১০)

রব্বানা – ১৯

(১৯) রাব্বানা হাবলানা মিন আজ ওয়াজিনা ওয়া জুররিই ইয়াতিনা ক্বুররাতা আঅ্ব ইয়ুনিউ ওয়াজঅ্বালনা লিল মুত্তাকিনা ইমামা
رَبَّنا هَب لَنا مِن أَزواجِنا وَذُرِّيّاتِنا قُرَّةَ أَعيُنٍ وَاجعَلنا لِلمُتَّقينَ إِمامًا
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদের স্ত্রীদের পক্ষ থেকে এবং আমাদের সন্তানের পক্ষ থেকে আমাদের জন্যে চোখের শীতলতা দান কর এবং আমাদেরকে মুত্তাকীদের জন্যে আদর্শস্বরূপ কর। (সুরা ফুরকান ২৬:৭৪)

রব্বানা – ২০

(২০) রাব্বানা ওয়াসিঅ্বতা কুল্লা শাইয়ির রাহমাতাও ওয়া ঈ্বলমান তাগ্বফির লিল্লাজিনা তাবু ওয়াত্তাবাউ্ব সাবিলাকা ওয়াক্বিহিম অ্বাজাবাল জাহিম
رَبَّنا وَسِعتَ كُلَّ شَيءٍ رَحمَةً وَعِلمًا فَاغفِر لِلَّذينَ تابوا وَاتَّبَعوا سَبيلَكَ وَقِهِم عَذابَ الجَحيمِ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আপনার রহমত ও জ্ঞান সবকিছুতে পরিব্যাপ্ত। অতএব, যারা তওবা করে এবং আপনার পথে চলে, তাদেরকে ক্ষমা করুন এবং জাহান্নামের আযাব থেকে রক্ষা করুন। (সুরা মু’মিন ৪০:৭)

রব্বানা – ২১

(২১) রাব্বানা ওয়া আদখিলহুম জান্নাতি অ্বাদনিল্লাতি ওয়া অ্বাত্তাহুম মান সালাহা মিন আ বা ইহিম ওয়া আজওয়াজিহিম ওয়া জুর্‌রিই ইয়াতিহিম; ইন্নাকা আনতাল অ্বাজিজুল হাকিম
رَبَّنا وَأَدخِلهُم جَنّاتِ عَدنٍ الَّتي وَعَدتَهُم وَمَن صَلَحَ مِن آبائِهِم وَأَزواجِهِم وَذُرِّيّاتِهِم إِنَّكَ أَنتَ العَزيزُ الحَكيمُ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আর তাদেরকে দাখিল করুন চিরকাল বসবাসের জান্নাতে, যার ওয়াদা আপনি তাদেরকে দিয়েছেন এবং তাদের বাপ-দাদা, পতি-পত্নী ও সন্তানদের মধ্যে যারা সৎকর্ম করে তাদেরকে। নিশ্চয় আপনি পরাক্রমশালী, প্রজ্ঞাময়। (সুরা মু’মিন ৪০:৮)

রব্বানা – ২২

(২২) রাব্বানাকশিফ অ্বান্নাল অ্বাজাবা ইন্না মুঅ্বমিনুন
رَبَّنَا اكشِف عَنَّا العَذابَ إِنّا مُؤمِنونَ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা আমাদের উপর থেকে শাস্তি প্রত্যাহার করুন, আমরা বিশ্বাস স্থাপন করছি। (সুরা দুখান ৪৪:১২)

রব্বানা – ২৩

(২৩) রাব্বানাগ্ব ফিরলানা ওয়ালি ইখওয়ানিনাল লাজিনা সাবাক্বুনা বিল ঈমানি ওয়ালা তাজঅ্বাল ফি ক্বুলুবিনা গিল্লাল লিল্লাজিনা আমানু; রাব্বানা ইন্নাকা রাউফুর রাহিম
رَبَّنَا اغفِر لَنا وَلِإِخوانِنَا الَّذينَ سَبَقونا بِالإيمانِ وَلا تَجعَل في قُلوبِنا غِلًّا لِلَّذينَ آمَنوا رَبَّنا إِنَّكَ رَءوفٌ رَحيمٌ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদেরকে এবং ঈমানে আগ্রহী আমাদের ভ্রাতাগণকে ক্ষমা কর এবং ঈমানদারদের বিরুদ্ধে আমাদের অন্তরে কোন বিদ্বেষ রেখো না। হে আমাদের পালনকর্তা, আপনি দয়ালু, পরম করুণাময়। (সুরা হাশরি ৫৯:১০)

রব্বানা – ২৪

(২৪) রাব্বানা অ্বালাইকা তাওয়াক্কালনা ওয়া ইলাইকা আনাবনা ওয়া ইলাইকাল মাছির
رَبَّنا عَلَيكَ تَوَكَّلنا وَإِلَيكَ أَنَبنا وَإِلَيكَ المَصيرُ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা! আমরা তোমারই উপর ভরসা করেছি, তোমারই দিকে মুখ করেছি এবং তোমারই নিকট আমাদের প্রত্যাবর্তন। (সুরা মুমতাহিনাহ ৬০:৪)

রব্বানা – ২৫

(২৫) রাব্বানা আতমিম লানা নুরানা ওয়াগ্বফিরলানা, ইন্নাকা অ্বালা কুল্লি শাইয়িন ক্বাদির
رَبَّنا أَتمِم لَنا نورَنا وَاغفِر لَنا إِنَّكَ عَلى كُلِّ شَيءٍ قَديرٌ
অর্থ: হে আমাদের পালনকর্তা, আমাদের নূরকে পূর্ণ করে দিন এবং আমাদেরকে ক্ষমা করুন। নিশ্চয় আপনি সবকিছুর উপর সর্ব শক্তিমান। (সুরা তাহরীম ৬৬:৮)

এছাড়াও প্রার্থনার আরও অনেক দু’আ আছে। মাতৃভাষায় আল্লাহর কাছে চাওয়ার পাশাপাশি চলুন না কোরআনের ভাষায় আল্লাহর কাছে চাই।
رَ‌بَّنَا تَقَبَّلْ مِنَّا إِنَّكَ أَنتَ السَّمِيعُ الْعَلِيمُ
রাব্বানা তাকাব্বাল মিন্না ইন্নাকা আনতাস সামিউল আলীম
পরওয়ারদেগার! আমাদের থেকে কবুল কর। নিশ্চয়ই তুমি শ্রবণকারী, সর্বজ্ঞ।

Leave a Reply