অন্তরের শান্তি লাভে কতিপয় মূলনীতি



v  রিযিক আল্লাহর পক্ষ থেকে বণ্টন করাই আছে। রিযিকের জন্যে দুশ্চিন্তা করবেন না। 

v  আপনার কী হবে না হবে, সবই তাকদীরে লেখা আছে। অস্থির হয়ে পড়বেন না।

v   আল্লাহর পক্ষ থেকে বিপদ এলে, আপনার আপনজন বন্ধুবান্ধব ঠেকাতে পারবে না। তাদের আশায় বসে থাকবেন না। 

v  আল্লাহর পক্ষ থেকে রহমত এলে, বিশে^ সেরা শক্তিমানও রোধ করতে পারবে না। 

v  কলবকে তিনটা বস্তু থেকে মুক্ত করে ফেলবেন: হিংসা বিদ্বেষ লোকদেখানো মনোভাব। 

v  কলবকে তিনটা গুণে গুণান্বিত করবেন: সত্যবাদিতা, স্রষ্টার প্রতি নিষ্ঠা, প্রভুর ভয়। 

v  মনে তিনটা বিষয় ধরে রাখবেন,
. প্রভুর প্রতি আত্মসমর্পণ।
. আল্লাহর রাসূল মুহাম্মাদ (সা.)-এর প্রতি ভালোবাসা।
. সুখেদুঃখে সর্বাবস্থায় স্রষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞতা 

v  অন্যের দোষত্রুটি না খুঁজে, আত্মসংশোধনে ব্রতী হোন। মানুষের দোষের দায়িত্ব আল্লাহর হাতে ছেড়ে দিন। 
v তিনটা বিষয় সাথে রাখতে হবে,
. সদা প্রভুর স্মরণ।
. ধৈর্য্যশীল কষ্টসহিষ্ণু শরীর।
. চিন্তাশীল অন্তর্ভেদী সত্যসন্ধানী মেধা। 

v তিনটা বিষয়কে যমের মতো ভয় করে চলবেন,
. অন্য ব্যক্তি সম্পর্কে অহেতুক আলোচনা। এমন আলোচনা নিজের মানসিক দৈন্যকে ফুটিয়ে তোলে।
. অন্যের ধনসম্পদ সম্পর্কে আলোচনা।
. যার মধ্যে কোনও কল্যাণ নেই, ভালো কিছু নেই, তার সাথে বসা।
(সংগ্রহ করা হয়েছ)

Leave a Reply